বিশেষ নিবন্ধ

আওয়ামী লীগের পুনর্জন্ম: শেখ হাসিনার দেশে ফেরা এবং আধুনিক বাংলাদেশ গড়ে তোলার উপাখ্যান

সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে গত বছর (২০২১ সালে) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করেছে বাংলাদেশ। মহান বিজয়ের ৫০ বছর পেরিয়ে গত ২৬ মার্চ (২০২২) স্বাধীনতার ৫১তম বার্ষিকী উদযাপন করেছি আমরা, বিজয়ের ৫১তম (১৬ ডিসেম্বর, ২০২২) বার্ষিকী উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে বিশ্বের প্রতিটি রাষ্ট্রের কাছ থেকে এখন স্যালুট পাচ্ছে বাঙালি জাতি। অথচ দেড় যুগ আগেও উগ্রবাদ, সন্ত্রাসবাদ, অব্যবস্থাপনা ও দু...

আওয়ামী লীগ: শুধু দল নয়, ৭৩ বছরের পুরনো পরিবার

বাংলাদেশের সবচেয়ে পুরনো ও বৃহত্তম রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ। বাঙালি জাতির মুক্তিসংগ্রাম ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছে এই দল। আওয়ামী লীগের হাত ধরেই রচিত হয়েছে পাকিস্তানি শোষকদের বিরুদ্ধের প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রাম। ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন দল প্রতিষ্ঠার পর থেকে, টানা ৭২ বছর ধরে বাংলাদেশের রাজনীতির অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের ইতিহ...

বাংলাদেশঃ আওয়ামী লীগের যাত্রাপথের সোনালি অর্জন

বাঙালি জাতির জাগরণ, জাতীয় চেতনার বিকাশ, হাজার বছরের দাসত্বের শৃঙ্খল ভেঙে মুক্তির জন্য গণজোয়ার, অকুতোভয় সংগ্রাম, জয় বাংলা স্লোগান, নৌকা প্রতীকে ভোটদান ও মহান স্বাধীনতা; এই সবকিছুর মূলেই রয়েছে একটি নাম- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। হ্যাঁ, আওয়ামী লীগের হাত ধরেই প্রতিবন্ধকতার পাহাড় ডিঙিয়েছে বাঙালি। ঘোর অমানিশায় নিমজ্জিত কোটি কোটির মানুষকে গনগনে সূর্যের মতো করে জাগিয়ে তু...

শেখ হাসিনার কারামুক্তি: এক-এগারোর অচলাবস্থা ভেঙে নতুন বাংলাদেশের অভিযাত্রা

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা, যার হাত ধরে দুর্ভাগ্যের পথ পেছনে ফেলে এসেছি আমরা। তার হাতে হাত রেখেই 'তলাবিহীন ঝুড়ি'র বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বুকে উন্নত মম শির হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এই পথ সহজ ছিল না। জীবনের প্রতিটি ধাপে ধাপে প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করতে হয়েছে তাকে। ১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যার পর ছয় বছর নির্বাসিত জীবন। এরপর প্রাণ হারানোর আশঙ্কা উপেক্ষা করে বঙ্গকন্যা...

৭৫-এর হাতিয়ার বলতে কী বোঝাতে চায় বিএনপি

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে বর্বরভাবে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এই আকস্মিক আঘাতে স্বাধীন বাংলাদেশ পুনর্গঠনের কাজ থমকে যায়। এরপর একই বছরের ৩ নভেম্বর কেন্দ্রীয় জেলখানায় নির্মমভাবে হত্যা করা হয় মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও জাতীয় চার নেতাকে। এরপর ৭ নভেম্বর সেনানিবাসেও বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করে সেই খুনি চক্রটি। নারকীয় হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে মুক্তিযু...