আনন্দের সঙ্গে শিক্ষালাভ নিশ্চিত করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

127

Published on জুন 25, 2024
  • Details Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার দেশে এমন একটি শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে চায়, যেখানে শিক্ষার্থীরা আগ্রহ ও আনন্দের সঙ্গে লেখাপড়া চালিয়ে যেতে পারে।

তিনি বলেন, ‘এমন একটি শিক্ষা ব্যবস্থা থাকা উচিত যাতে শিক্ষার্থীরা আগ্রহ নিয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারে। তাদের বারবার পড়াশোনা করতে বলার প্রয়োজন হবে না, বরং তারা নিজেরাই এটি করবে এবং তাদের সেই ইচ্ছাও রয়েছে। আমরা এই ব্যবস্থার উন্নয়ন করতে চাই।’

সোমবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অসচ্ছল ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি, টিউশন ফি ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মাধ্যমিক, স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যায়ের অসচ্ছল ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি ও টিউশন ফি বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে সবচেয়ে মেধাবী শিক্ষার্থীদের হাতে বঙ্গবন্ধু সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ-২০২৪ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্কলার-২০২৩ তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার পাঠ্যপুস্তক ও সিলেবাস সংশোধন করেছে। একই সঙ্গে পরিবর্তনশীল বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার জন্য সৃজনশীল শিক্ষা ব্যবস্থার উদ্যোগ নিয়েছে।

তিনি বলেন, সরকার এমন একটি ব্যবস্থার দিকে যেতে চায় যেখানে আনন্দময় পরিবেশের মধ্যে শিক্ষা গ্রহণ করা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপদেষ্টা কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী এবং শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বেগম শামসুন নাহার বক্তৃতা করেন।

স্বাগত বক্তব্যে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সুলেমান খান বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক এবং স্নাতক ও সমপর্যায়ের ৬৪ লাখ ৭০ হাজারের বেশি শিক্ষার্থীর মধ্যে মোট ২ হাজার ২০৮ কোটি টাকা বিতরণ করা হবে।

তিনি বলেন, চলতি অর্থবছরে জিটুপি (গভর্নমেন্ট টু পারসন) পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে উপবৃত্তি ও টিউশন ফি দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া ১৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে বঙ্গবন্ধু সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ-২০২৪ এবং স্নাতকোত্তর পর্যায়ের ২১ জন শিক্ষার্থীকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্কলার-২০২৩ দেওয়া হয়।

১৫ শিক্ষার্থীকে একটি করে সনদ ও ২ লাখ করে টাকা এবং স্কলার অ্যাওয়ার্ড-২০২৩ এর জন্য নির্বাচিত ২১ শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে একটি সনদ ও ৩ লাখ করে টাকা দেওয়া হয়।

বঙ্গবন্ধু সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ-২০২৪ প্রাপ্তদের পক্ষে হাজারীবাগ গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী নুসরাত জাহান মালিহা, দিনাজপুরের আমেনা-বাকি রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী আতিফা রহমান এবং খুলনার সরকারি মজিদ মেমোরিয়াল সিটি কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী পিনাক মুগ্ধা দাস তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

এছাড়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্কলার-২০২৩ প্রাপ্তদের পক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী জারিন তাসনিম রাইসা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থী আল ফয়সাল বিন কাশেম কানন তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত