চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

1285

Published on ডিসেম্বর 12, 2022
  • Details Image

চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে বর্তমান কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সাংসদ সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম আজাদ সাধারণ সম্পাদক হিসাবে পূনরায় নির্বাচিত হয়েছেন।

আজ ১২ ডিসেম্বর সোমবার সকাল ১০টার সময় চুয়াডাঙ্গা টাউন ফুটবল মাঠে সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুনের সভাপতিত্বে ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের ১ম পর্ব শুরু হয়।

সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। এ সময় তিনি বলেন, খেলা হবে, ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে ফাইনাল খেলা হবে। তিনি দলের সকল স্তরের নেতাকর্মীদের সকল বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার এবং ফাইনাল খেলার জন্য প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান।

এছাড়া তিনি জামায়াত ও বিএনপির কঠোর সমালোচনা করে আরও বলেন. তারা সরকার পতনের খোয়াব দেখা শুরু করেছেন। খোয়াব দেখা ভালো। কিন্তু রাজপথে এসে নাশকতা, বিশৃঙ্খলা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড সৃষ্টির চেষ্টা করবেন না। করলে আপনাদের বিরুদ্ধে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী চরম ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তিনি চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের সফলতা কামনা করেন।

সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার কাজী জাফর উল্লাহ। তিনি এ সময় বিএনপি নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, 'দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করবেন না। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এসময়ে অত্যন্ত সুসংগঠিত। অতএব কেউ পার পাবেন না।

প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখতে যেয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যখন উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছার দ্বারপ্রান্তে ঠিক সেই সময় পঁচাত্তরের ঘাতক চক্র একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলা কারীরা আবারও সক্রিয় হয়ে এখন শ্লোগান দিচ্ছে পঁচাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার। এটা কিসের ইঙ্গিত সেটা এদেশের মানুষের বুঝতে বাকি নেই। বঙ্গবন্ধু কন্যার নের্তৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত আছি।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, আমিরুল আলম মিলন এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, এড.গ্লোরিয়া সরকার ঝর্না এমপি, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মঞ্জু প্রমুখ।

এ সময় মঞ্চে পার্শ্ববর্তী কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ ও মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারন সম্পাদক সহ চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের বিশিষ্ট নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলন সঞ্চালন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম আজাদ।

এর পরে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে দ্বিতীয় পর্ব অর্থাৎ কাউন্সিল অধিবেশন শুরু হয়। এতে জেলার ২১৮ জন কাউন্সিলের মতামতের ভিত্তিতে আগামী দিনের জন্য চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসাবে যথাক্রমে সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন ও আজাদুল ইসলাম আজাদ এর নাম ঘোষণা করা হয়।

 

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত