নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

613

Published on ডিসেম্বর 5, 2022
  • Details Image

সমাবেশের নামে বিএনপি যাতে কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সতর্ক অবস্থানে থাকবে বলে জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

আজ নোয়াখালী শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন তিনি। 

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী ১০ ডিসেম্বর বিএনপি নাকি রাজপথ ও ঢাকা দখল করবে। ফখরুল সাহেব আমি বলতে চাই, আমাদের নেতাকর্মীরা মহানগর, জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড, পাড়া-মহল্লায় পাহারায় থাকবে। বিএনপি বিআরটিসির বাস পুড়িয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা-সিলেট সড়কে শেখ হাসিনার ভিত্তি প্রস্তর রাতের অন্ধকারে পুড়িয়েছে। তারা আগুন-লাঠি নিয়ে আসবে, এজন্য তারা পার্টি অফিসের সামনে সমাবেশ করতে চায়। বিশাল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানকে ফখরুল সাহেব বলেন খাঁচা।

জেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক অধ্যক্ষ এএইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম আহবায়ক এবং নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র সহিদ উল্লাহ খাঁন সোহেল এর সঞ্চালনায় সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, খেলা হবে স্লোগান মির্জা ফখরুলের পছন্দ নয়। আরো কারো কারো পছন্দ নয়। কিন্তু যে স্লোগান জনগণ পছন্দ করে, সেই স্লোগান আমি দিয়েই যাবো। খেলা হবে।   
সেতুমন্ত্রী বলেন, খেলা হবে, হবে খেলা, এই ডিসেম্বরে খেলা হবে। আগামী নির্বাচনে খেলা হবে, আন্দোলনে খেলা হবে, অর্থ পাচারের বিরুদ্ধে খেলা হবে, টাকা চুরির বিরুদ্ধে, ভোট চুরির বিরুদ্ধে খেলা হবে, হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে খেলা হবে। দুঃশাসনের বিরুদ্ধে খেলা হবে।  

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে জেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে জেলার নতুন সভাপতি হিসেবে অধ্যক্ষ এএইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের নাম ঘোষণা করেন ওবায়দুল কাদের। তবে, আগামী ১৭ ডিসেম্বর কাউন্সিলরদের ভোটে নির্বাচন অথবা আলোচনা সাপেক্ষে বাকি সকল পদের নাম ঘোষণা করা হবে।    

সম্মেলনে শোক প্রস্তাব পাঠ করেন, জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু এবং সাংগঠনিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন।
এছাড়া সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী, মোরশেদ আলম, এইচ এম ইব্রাহিম ও মামুনুর রশীদ কিরণ প্রমুখ।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত