প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের আনন্দ র‍্যালী

267

Published on সেপ্টেম্বর 28, 2022
  • Details Image

বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, আজকের এই দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। শিক্ষা জীবনে তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন। আইয়ুব বিরোধী আন্দোলনে আজিমপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মিছিল শুরু হয়। শিক্ষা জীবন থেকেই সকল আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথের সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছেন। বারবার তার ওপর আঘাত এসেছে কিন্তু তিনি কখনোই মাথা নত করেননি। বঙ্গবন্ধু নিজের জীবন উৎসর্গ করে এই বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। তারই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নত- সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন।

দীর্ঘ এই পথ চলায় এই দেশের মানুষ সব সময় তাকে সমর্থন ও সাহস যুগিয়েছেন। বাংলাদেশের যে কোন দুর্যোগ -দূর্বিপাক, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বৈষয়িক সমস্যা, করোনা পরিস্থিতি, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সফলভাবে মোকাবেলা করেছেন। শেখ হাসিনা সব সময় দেশের মানুষের সাথে ছিলেন এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন। এর পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে সারাবিশ্বে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা আজ এই বাংলাদেশের উন্নয়নের কান্ডারী। বাঙালির বিশ্ব জয়ের স্বপ্ন সারথি। উন্নত- সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার কারিগর। শেখ হাসিনাই সারাবিশ্বে প্রথম সফল রাষ্ট্রপ্রধান যিনি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে সর্বাধিক বার বাংলায় বক্তৃতা দিয়ে কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। আজ তার জন্মদিনে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ও সর্বস্তরের বগুড়া বাসির পক্ষ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাই।

তিনি আজ সকাল ১১ টায় আওয়ামীলীগ সভাপতি, বঙ্গবন্ধু কণ্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষে জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে আনন্দ র‍্যালি পূর্ব সমাবেশে সভাপতি এর বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু।

র‍্যালিতে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা টি জামান নিকেতা, অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন, আবুল কালাম আজাদ, অ্যাডভোকেট আমানুল্লাহ, প্রদীপ কুমার রায়, মনজুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু, সাগর কুমার রায়, শাহরিয়ার আরিফ ওপেল, অ্যাডভোকেট তবিবুর রহমান তবি, শাহ আখতারুজ্জামান ডিউক, সুলতান মাহমুদ খানের রনি, আব্দুল্লাহ আল রাজী জুয়েল, শেরিন আনোয়ার জার্জিস, নাসরিন রহমান সীমা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনিসুজ্জামান মিন্টু, মাশরাফি হিরো, আনোয়ার পারভেজ রুবন, তপন চক্রবর্তী, এস এম রুহুল মোমেন তারিক, এস এম শাহজাহান, জহুরুল হক বুলবুল, খালেদুজ্জামান রাজা, আবু সেলিম, আতিকুর রহমান দুলু, রফি নেওয়াজ খান রবিন আবু সুফিয়ান শফিক আবু ওবায়দুল হাসান ববি, অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম নাফরু, অধ্যক্ষ আহসানুল হক, সাইফুল ইসলাম বুলবুল, আলমগীর হোসেন স্বপন, আলতাফুর রহমান মাসুক, কামরুল হুদা উজ্জ্বল, গৌতম কুমার দাস, আব্দুস সালাম, কামরুল মোর্শেদ আপেল, আলমগীর বাদশা, সাজেদুর রহমান শাহিন, মনজুরুল ইসলাম মঞ্জু,জুলফিকার রহমান শান্ত, ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, রাশেদুজ্জামান রাজন, সাব্বির আহমেদ প্রমুখ।

এরপর বাদ জোহর বাইতুর রহমান সেন্ট্রাল জামে মসজিদে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ সহ সাধারণ মুসল্লীগণ দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত