বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল-এঁর ৭৩ তম জন্মদিন পালিত

67

Published on আগস্ট 6, 2022
  • Details Image

বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি  মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল ছিলেন পরোপকারী, নিরহংকার, অসাধারণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী। ক্রিয়া সংগঠক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, রাজনৈতিক দূরদর্শিতাও নেতৃত্ব দেওয়ার গুণাবলী অতি অল্প সময় সকলকে মুগ্ধ করেছিল। ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত হয়ে বঙ্গবন্ধুর সাথে ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চের কর্মসূচি সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে। মহান  মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে। ১৫ ই আগস্ট ঘাতকের নির্মম বুলেটের আঘাতে বঙ্গবন্ধু সহ সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে ইতিহাসের জঘন্যতম একটি অধ্যায়ের জন্ম হয়েছিল। হত্যা করা হয়েছিল প্রতিভাবান, ন্যায়পরায়ণ, তরুণ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল কেউ। নেতৃত্ব শূন্য করতেই পরিবারের সকল সদস্যকে ঘাতকেরা হত্যা করেছিল। রেহাই পায়নি ১০ বছরের শিশু সন্তান শেখ রাসেলও। সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা পরিবার পরিজন সব হারিয়ে শুধু দেশের মানুষের জন্যই কাজ করে যাচ্ছেন। 

তিনি আজ (৫/৮/২২)শুক্রবার বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ পুত্র শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩ তম জন্মদিন উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু।

উক্ত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ডা: মকবুল হোসেন, আবুল কালাম আজাদ, আসাদুর রহমান দুলু, অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন নবাব, অধ্যক্ষ শাহাদাত আলম ঝুনু, আখতারুজ্জামান ডিউক, সুলতান মাহমুদ খান রনি, আব্দুল্লাহ আল রাজী জুয়েল, নাসরিন রহমান সীমা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনিসুজ্জামান মিন্টু, মাশরাফি হিরো, আনোয়ার পারভেজ রুবন, রুহুল মোমিন তারিক, এস এম শাহজাহান, খালিকুজ্জামান রাজা, এম এ বাসেদ, আতিকুর রহমান দুলু, অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম দুলু, অধ্যক্ষ শামসুল আলম জয়, অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম নাফরু, ইমরান হোসেন রীবন, অধ্যক্ষ আহসানুল হক, সাইফুল ইসলাম বুলবুল, আলমগীর হোসেন স্বপন, কামরুল হুদা উজ্জ্বল, গৌতম কুমার দাস,  হেফাজত আরা মিরা, মাহফুজুল ইসলাম রাজ, আলমগীর বাদশা, কামরুল মোরশেদ আপেল, মনজুরুল হক মঞ্জ, জুলফিকার রহমান শান্ত,  অ্যাডভোকেট লাইজিন আরা লিনা, সাবরিনা পিংকি, ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, রাশেদুজ্জামান রাজন, ছাত্রলীগ নেতা সুজিত রায় ও মনিরুজ্জামান সাব্বির সহ অঙ্গ ও সহযোগী সাংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভার শেষে বঙ্গবন্ধু, ক্যাপ্টেন শেখ কামাল সহ পরিবারের সকল শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন বাইতুর রহমান সেন্ট্রাল মসজিদের মাওলানা মোঃ আব্দুল করিম।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত