'বিএনপি-জামায়াত দেশের শত্রু, জাতির শত্রু'

1595

Published on আগস্ট 20, 2021
  • Details Image

আজ বুধবার (১৮ আগষ্ট) বিকাল ৪ টায় সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এর চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মাইনুল হোসেন খান এর আহবানে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে ১৫ই আগষ্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সহ সকল শহীদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত আয়োজনে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে দেশকে শাসনের নামে শোষন করছে। লুটপাটের রাজনীতি করে ওরা দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গিয়েছিল। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা সেই ধ্বংসস্তূপ থেকে দেশকে আজ উন্নয়নের মহাসড়কে নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, সারা দেশ যখন করোনায় বিপর্যস্ত। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নির্দেশে যুবলীগ মাঠে কাজ করছে। করোনায় মৃতদের দাফন করছে, ফ্রি অক্সিজেন সেবা দিচ্ছে, টেলিমেডিসিন সেবা দিচ্ছে, কৃষকদের ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছে, ঘরে ঘরে খাবার পৌছে দিচ্ছে। ঠিক তখনই বিএনপি দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এতেই বুঝা যায়- তারা দেশের মানুষকে চায় না, শুধুমাত্র ক্ষমতা চায়। যাতে তারা দেশের মানুষকে শাসনের নামে শোষন করতে পারে।

নিখিল বলেন, বিএনপি'র নেতারা ক্ষমতার লোভে পাগল হয়ে গিয়েছেন। রিজভি বললেছেন, সিরিজ বোমা হামলায় নাকি বিএনপি জড়িত নয়, ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় নাকি আওয়ামী লীগ জড়িত! তৎকালীন বিএনপি সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে নাকি আওয়ামী লীগ এসব হামলা করেছিল! বিএনপি'র নেতারা এরকম পাগলের প্রলাপ বকে চলেছে।

দেশ এখন উন্নয়নের চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌছে গেছে। শহর থেকে শুরু করে গ্রামের পাড়া-মহল্লা পর্যন্ত সরকারের উন্নয়ন পৌছে গিয়েছে। মানুষ এখন নৌকাকেই চায়, চায় শেখ হাসিনাকে।

যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবদ্দশায় যারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিল, বিএনপি সেই ষড়যন্ত্রের উত্তরসূরি। আগষ্ট এলেই বিএনপি নানা ধরণের ষড়যন্ত্রের জাল পাঁতে। সরকার পতন করতে বিদেশী মিডিয়ার পেছনে বিএনপি অর্থ ব্যয় করছে বিএনপি। কিন্তু এ মহামারিতে বিএনপি-জামায়াত এক মুঠো চাল নিয়ে কারও কাছে যায় নি। তারা জাতির শত্রু, দেশে শত্রু।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মাশার আহমদ শাহ সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক দিদারুল আলম নিমু ও মাহবুবুর হমান মিছলুর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব,বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার এড. মামুনুর রশিদ ও মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম জোয়ার্দ্দার সৈকত, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সোহেল পারভেজ, ড. মো. রেজাউল কবির, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, উপ-সাংষ্কৃতিক সম্পাদক ফজলে রাব্বি স্মরণ, উপ-মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া শামীম, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সহ-সভাপতি মো. জাফর ইকবাল, সহ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম, কাযনির্বাহী সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মুক্তার হোসেন চৌধুলী কামাল, এড. গোলাম কিবরিয়া, নুর হোসেন সৈকত, মোবাশ্বের হোসেন স্বরাজ, নুরুল ইসলাম নুর মিয়া, সিলেট জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি,সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ,মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, কেন্দ্রীয় সদস্য শাকিল আহদ তানভীর, মোজাম্মেল মিশু, জহিরুল ইসলাম শিশির, এড. চৌধুরী হাসান মো. আব্দুল্লাহ রাজন, আব্দুল হাকিম তানভীর, ওলিউল্লাহ সৌরভ, কামরুল ইসলাম সজীব প্রমুখ।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত