সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের মানববন্ধন

485

Published on আগস্ট 18, 2021
  • Details Image

২০০৫ সালের ১৭ই আগস্ট দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত মানববন্ধনে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ বলেন, ‘জঙ্গি গোষ্ঠী ১৭ ই আগস্ট সারা দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলা করে। পরবর্তীতে ২১ শে আগস্ট শেখ হাসিনাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে বোমা হামলা করে। আল্লাহর রহমতে তিনি বেঁচে যান। কিন্তু আওয়ামী লীগের নেত্রী আইভি রহমানসহ সহ অনেকেই নিহত হন। আমাদের প্রিয় নেত্রীও সেইদিন কানের মধ্যে প্রচন্ড আঘাত পেয়েছিলেন। আজও তাঁর কানের যন্ত্রণা পুরোপুরি সুস্থ হয় নি।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি এনে দিয়েছেন শেখ হাসিনা। আগামী ৫ বছরে দেশ ৪০ তম সমৃদ্ধ দেশের পর্যায়ে পৌঁছাবে। তবে রাজনীতির পথচলায় আমাদেরকে মোনাফেক ও বেঈমানদের চিহ্নিত করতে হবে। সৎ ও স্বচ্ছ নেতাদের মূল্যায়ন করতে হবে। চলুন আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে যাই। আর জঙ্গিবাদ দমনে সবাই সর্বদা সোচ্চার হই। কারণ জাতির পিতার মাটিতে জঙ্গিবাদের স্থান নেই।’

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে সকাল ১১ টায় চৌহাট্টাস্থ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সম্মুখে মহানগর আওয়ামী লীগের আয়োজিত মানববন্ধনে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেনের পরিচালনায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার ও আওয়ামী লীগ করোনার মত অতিমারি সহ সকল প্রতিকূলতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের রাজনীতি করে। ভোগবাদের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না, ত্যাগের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। ত্যাগীদের রাজনীতি করার উৎকৃষ্ট প্ল্যাটফর্ম হল আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন। চলুন আমরা শপথ নেই, স্বচ্ছ ধারার রাজনীতি করবো, জনগণ যা চায় সেই অনুযায়ী রাজনীতি করবো এবং নেত্রীর পছন্দের রাজনীতি করবো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা আরোএগিয়ে যাবো। ইনশাআল্লাহ।’

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, নুরুল ইসলাম পুতুল, মো. সানাওয়র, জগদীশ চন্দ্র দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিধান কুমার সাহা, দপ্তর সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নজমুল ইসলাম এহিয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রহমান জামিল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আজাহার উদ্দিন জাহাঙ্গীর, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মোহাম্মদ জুবের খান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তী রনি , সহ-প্রচার সম্পাদক সোয়েব আহমদ, উপদেষ্টা কানাই দত্ত।

মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্যবৃন্দ নুরুন নেছা হেনা, এডভোকেট মোহাম্মদ জাহিদ সারোয়ার সবুজ,এমরুল হাসান, সুদীপ দে, সাইফুল আলম স্বপন, রোকসানা পারভীন, জামাল আহমদ চৌধুরী, খলিল আহমদ, আবুল মহসিন চৌধুরী মাসুদ, ইঞ্জিঃ আতিকুর রহমান সুহেদ, শিপা বেগম শুপা,জুমাদিন আহমেদ, মাহফুজ চৌধুরী জয়, ইলিয়াছ আহমেদ জুয়েল, মহানগর তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল হাসনাত বুলবুল । মহানগর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ মুহিবুর রহমান সাবু, মো. ছিদ্দেক আলী, সালউদ্দিন বক্স সালাই, ফখরুল হাসান ফখরুল, দেলোওয়ার হোসেন রাজা ,তাজ উদ্দিন লিটন, জায়েদ আহমেদ খাঁন সায়েক ,নজরুল ইসলাম নজু, এডভোকেট মোস্তফা দিলোয়ার আজহার, মো. বদরুল ইসলাম বদরু, মানিক মিয়া, এডভোকেট বিজয় কুমার দেব বুলু, ফজলে রাব্বি মাসুম, শেখ সোহেল আহমদ কবির, এমএন ইসলাম সহ শ্রমিক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, তাঁতী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত