২৮০০ মানুষের মাঝে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ইফতার বিতরণ করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র

1002

Published on মে 8, 2021
  • Details Image
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন-ডিএনসিসির মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম করোনা পরিস্থিতিতে পবিত্র রমজানে খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন। শুক্রবার বিকালে রাজধানীর উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টর কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় পথশিশু, হতদরিদ্র, রিকশাচালক ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় ডিএনসিসির মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে পবিত্র রমজানে খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ তার নিজের পক্ষ থেকে একটি ক্ষুদ্র প্রয়াস মাত্র।
 
মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, সম্পূর্ণ তার ব্যক্তিগত উদ্যোগে এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন "বিডি ক্লিন" এর মাধ্যমে আজ ডিএনসিসির ৬, ৭, ১৫, ১৭, ১৯, ২০ ও ৩২ নম্বর এই ৭টি ওয়ার্ডের প্রতিটির জন্য ৪ শ প্যাকেট করে সর্বমোট ২ হাজার ৮০০ প্যাকেট ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হলো।
 
তিনি বলেন, আগামীকাল থেকে প্রতিদিন ৯টি ওয়ার্ডের প্রতিটির জন্য ৪ শত প্যাকেট করে সর্বমোট ৩ হাজার ৬০০ প্যাকেট ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হবে।
 
ডিএনসিসির মেয়র বলেন, পর্যায়ক্রমে ডিএনসিসির সবগুলো ওয়ার্ডেই ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হবে। তিনি আরও বলেন, করোনাকালে দুস্থ ও অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের জন্য সাধারণ ও সংরক্ষিত আসনের ৭২ জন কাউন্সিলরের প্রত্যেককে এক লক্ষ টাকা করে বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।
  
মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে ওয়ার্ড প্রতি ৫০০ জন অসহায়-হতদরিদ্র মানুষকে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণের জন্য ৭২ জন কাউন্সিলরের প্রত্যেককে ১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা করে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
উপস্থিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দোকানপাট ও শপিংমলসমূহে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মানতে হবে, অন্যথায় কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থার সম্মুখীন হতে হবে। এমনকি স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সংশ্লিষ্ট দোকানপাট ও শপিংমল বন্ধ করে দেওয়া হবে।
 
তিনি বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা ও লকডাইন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হচ্ছে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত