ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে পিরোজপুরের গুয়ারেখায় আওয়ামী লীগের জনসভা

780

Published on মার্চ 9, 2021
  • Details Image

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে গুয়ারেখা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর আয়োজনে বাটনাতলা বালক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে এক জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব একে,এম,এ আউয়াল।

তিনি বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণ ছিল বাঙালির স্বাধীনতা প্রাপ্তির অনুপ্রেরণা। বঙ্গবন্ধুর ভাষণ গোটা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ এবং আন্দোলনের মানসিকতা তৈরি করেছিল।
মানুষকে মুক্তিযুদ্ধের জন্য অনুপ্রাণিত করেছিল।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট কানাইলাল বিশ্বাস যুগ্মসাধারণ সম্পাদক জেলা আওয়ামী লীগ, জনাব মহিউদ্দিন মহারাজ, চেয়ারমান জেলা পরিষদ পিরোজপুর, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক জেলা আওয়ামী লীগ পিরোজপুর, জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ, সভাপতি স্বরূপকাঠি আওয়ামী লীগ, জনাব এস এম ফুহাদ,সাধারণ সম্পাদক স্বরূপকাঠি উপজেলা আওয়ামী লীগ, গোলাম কবির,মেয়র স্বরূপকাঠি পৌরসভা , সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ পিরোজপুর, জনাব শেখার চন্দ্র সিকদার (প্রমুখ)

এদিকে রবিবার (৭ মার্চ) সকাল ৭টায় ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী। এ সময় স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধার নিদর্শন স্বরূপ সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন বঙ্গবন্ধু কন্যা। জাতির পিতার আরেক কন্যা, প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন সেখানে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য ও দলের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন। দলীয় সভাপতির শ্রদ্ধা জানানোর পর আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে।

বাঙালি জাতির স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা গৌরবের এক অনন্য দিন আজ। ৫০ বছর আগের এ দিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণে গর্জে উঠেছিল উত্তাল জনসমুদ্র।

লাখ লাখ মানুষের গগনবিদারী স্লোগানের উদ্দামতায় বসন্তের মাতাল হাওয়ায় সেদিন পত পত করে উড়ে বাংলাদেশের মানচিত্র খচিত লাল-সবুজের পতাকা। মূলত বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের মধ্য দিয়েই স্বাধীনতা সংগ্রামের সূচনা হয়েছিল।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত