৩০ হাজার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন নওগাঁ-৫ আসনের সাংসদ

1142

Published on এপ্রিল 21, 2020
  • Details Image

সরকারি নির্দেশনা মেনে কর্মহীন হয়ে পড়া দিনমজুর ও নিম্নআয়ের মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার (২৮ মার্চ) দুপুর থেকে ব্যক্তি উদ্যোগে এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন নওগাঁ-৫ আসনের এমপি ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন।

প্রাথমিক অবস্থায় সদর উপজেলার দিনমজুর ও নিম্নআয়ের খেটে খাওয়া ১০ হাজার পরিবারের মাঝে এ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। আরও ২০ হাজার পরিবারের মাঝে খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে সকাল থেকে শহরের ঠিকানা কমিউনিটি সেন্টারে খাবারগুলো প্যাকেট করেন আওয়ামী লীগের কর্মীরা। 

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সারাদেশে সরকারের তরফ থেকে সব ধরনের জনসমাগম, রাস্তায় যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। জরুরি কাজ ছাড়া বাড়ি থেকে মানুষকে বের না হওয়ার জন্য বিশেষভাবে সতর্ক করা হয়েছে। রাস্তাঘাটে যান চলাচল সীমিত হয়ে পড়েছে।

পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন স্থানে মাইকিং করে প্রচার করা হচ্ছে রাস্তায় বের না হওয়ার। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। হঠাৎ করেই নিষেধাজ্ঞা আরোপ হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন খেটে খাওয়া দিনমজুর ও নিম্নআয়ের মানুষ। দিনমজুরদের সহযোগিতা করতেই এমপির ব্যক্তিগত তহবিল থেকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

শহরের চাকমুক্তার মহল্লার রিকশাচালক দেলোয়ার বলেন, ‘জীবিকার তাগিদে ঢাকায় রিকশা চালাতাম। করোনা আতঙ্ক শুরু হওয়ায় বাড়িতে চলে এসেছি। যে একটু পুঁজি ছিল, ঘরে বসে খেয়ে শেষ হওয়ার পথে। ঢাকাতেও যেতে পারছি না। হঠাৎ করে এমপি জন আমাদের জন্য কিছু খাবার দিয়েছেন। চাল, ডাল, আলু, ময়দা ও সাবান পেয়ে আমরা অনেক খুশি।’

আওয়ামী লীগ নেতা শাহ পরান নয়ন বলেন, কর্মজীবী মানুষরা গত কয়েকদিন থেকে বাড়িতে অবস্থান করায় অসহায় হয়ে পড়েছেন। বিশেষ করে ঘরে বসে থাকায় পরিবার-পরিজন নিয়ে তাদের খাদ্য সংকট পড়ায় বিপাকে পড়েছেন। এমপির ব্যক্তিগত তহবিল থেকে কর্মজীবী মানুষের খাবারের জন্য সহায়তা করা হচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে পাঁচ কেজি চাল, দুই কেজি আটা, দুই কেজি আলু, এক কেজি মসুর ডাল ও একটি সাবান। এসব খাদ্যসামগ্রী আওয়ামী লীগ কর্মীরা নিজ দায়িত্বে অসহায়দের বাড়িতে পৌঁছে দেবেন। আমাদের অনুরোধ, আপনারা কেউ বাড়ি থেকে বের হবেন না, আমরাই আপনাদের খাবার পৌঁছে দেব- ইনশাআল্লাহ।

নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ সাহা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনপ্রতিনিধিদের সাধারণ মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের নির্দেশনা দিয়েছেন। সে লক্ষ্যে স্থানীয় এমপি ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন ব্যক্তি উদ্যোগে ৩০ হাজার পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। প্রাথমিক অবস্থায় প্রায় ১০ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী দেয়া হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে আমরা ৩০ হাজার পরিবারের মাঝে এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করব।

তিনি বলেন, অন্যান্য জেলার তুলনায় এই শহরে লোক সমাগম বেশি, যা শিগগিরই বন্ধ করা উচিত। এছাড়া অনেক প্রবাসী এখানে এসেছেন। যারা আত্মগোপনে আছেন। তারা হোম কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশনা মানছেন কি-না তা তদারকি করা উচিত।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত