জরুরি চিকিৎসাসেবার লক্ষ্যে সিলেটে চালু হয়েছে টেলিমেডিসিন সেবা

1721

Published on মে 1, 2020
  • Details Image

দেশব্যাপী করোনাভাইরাস সংকটজনিত পরিস্থিতিতে জরুরি চিকিৎসাসেবা প্রদানের লক্ষ্যে সিলেটে চালু হয়েছে টেলিমেডিসিন সেবা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরীর একটি হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সেন্টার এর উদ্বোধন করা হয়।

সিলেটে করোনাভাইরাস সংকটজনিত পরিস্থিতিতে চিকিৎসাসেবা প্রদানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেলের উদ্যোগে ও বিভিন্ন শাখার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন চিকিৎসকের সমন্বয়ে একটি চিকিৎসাসেবা প্রদান টিম গঠন করা হয়েছে।

করোনা সাপোর্ট সিলেট নামের টেলিমেডিসিন সেবার সহযোগিতা করছে যুক্তরাষ্ট্রের তথ্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এস জে ইনোভেশন, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দ্যা অপটিমিস্ট এবং চিকিৎসকদের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাংলাদেশে ফিজিশিয়ানস। এছাড়াও সহযোগিতা করছে হেলথ কেয়ার ফার্মা,বেক্সিমকো, ইউরো ফার্মা ও বাংলাদেশ ইমার্জেন্সি অ্যাকশন অ্যাগেইনস্ট কোভিড-১৯।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয় আগামী শনিবার (২ মে) থেকে নির্দিষ্ট তিনটি মোবাইল নম্বরে ফোন করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা নির্ধারিত ডাক্তারদের কাছ থেকে পাওয়া যাবে। সকাল ৮টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত নির্দিষ্ট তিনটি মোবাইল ফোন নম্বরে ফোন করলে যে কেউ প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

অনলাইন ভিত্তিক ‘করোনা সাপোর্ট সিলেট’ এ সহযাত্রী হয়েছেন সিলেট ও আমেরিকার বেশ কিছু চিকিৎসক।

করোনা সাপোর্ট সিলেট কর্মসূচির আওতায় তিনটি হটলাইনের মাধ্যমে প্রতিদিন অনলাইনে ভিডিওকলের মাধ্যমে রোগীদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দ্বারা চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে।

এ জন্য সকাল আটটা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত তিনটি মুঠোফোন নম্বর চালু করা হয়েছে। তিনটি মুঠোফোন নম্বরের মধ্যে ০১৭২১০২৮৯১১ নম্বরে সকাল আটটা থেকে বেলা একটা, ০১৭২০২৩০৭৬৭ নম্বরে বেলা একটা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা এবং ০১৭২১০৭৯৭৮১ নম্বরে সন্ধ্যা ছয়টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত চিকিৎসা সেবার জন্য যোগাযোগ করা যাবে। মুঠোফোন নম্বরগুলোতে যোগযোগের পর প্রথমে নিবন্ধন শেষে সেবা প্রার্থীদের শারীরিক সমস্যার ধরণ ভেদে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেওয়া হবে। এর জন্য কোনো ধরণের ফির প্রয়োজন হবে না। করোনা পরিস্থিতিতে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া হবে চিকিৎসা সেবা। এছাড়া রয়েছে ফেসবুক পেইজঃ Health Support Sylhet 2020 ও ওয়েবসাইট www.coronasupportsylhet.com। এছাড়া সিলেট শহরে করোনা রোগীদের জন্য অ্যাম্বুলেন্স সেবার ব্যবস্থাও করেছে ‘করোনা সাপোর্ট সিলেট’।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও টেলিমেডিসিন সেবার সমন্বয়ক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে সিলেটে বন্ধ রয়েছে চিকিৎসকদের চেম্বার। এমন পরিস্থিতিতে বেকায়াদায় পড়েছেন চিকিৎসা সেবা প্রার্থীরা। চিকিৎসক এবং সেবাপ্রার্থীদের নিরাপদ রেখে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করেতই এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এতে বিশেষজ্ঞ অর্ধশত চিকিৎসক আমাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। আরও অনেক চিকিৎসক যুক্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

চিকিৎসা সেবা কার্যক্রমটির সঙ্গে যুক্ত থাকা চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ এহসান উজ জামান খান বলেন, বাইরে চিকিৎসা সেবা নিতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঝুকি রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি এমন পরিস্থিতিতে ফোনের মাধ্যমে চাহিদা অনুযায়ী সেবা প্রার্থীদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করানো হবে। করোনা সাপোর্ট সিলেট নামের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপের মাধ্যমে চিকিৎসক এবং সেবা প্রার্থী সারাসরি ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত করে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা হবে। এতে ঘরে বসেই করোনা ঝুকি মুক্তভাবে চিকিৎসা সেবা নিতে পারবেন সেবা প্রার্থীরা।

নাদেল বলেন, এ উদ্যোগটি প্রাথমিক ভাবে সিলেটে চালু হয়েছে। এটি সফল হলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং স্বাস্থ্য সম্পাদকের বলেছেন সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়ার চিন্তাভাবনা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চিকিৎসা সেবা প্রার্থী এবং চিকিৎসক শুধু মুঠোফোনে কথা বলে পুরোপুরি সন্তুষ্ট হতে পারেন না। এজন্য ওয়েবসাইট এবং অ্যাপটি চালু করা হয়েছে। এতে চিকিৎসক এবং সেবা প্রার্থী সারসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে সেবা নিতে পারবেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সিলেটের চিকিৎসকদের জন্য ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান করেন শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য দেন যুক্তরাষ্ট্রের তথ্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এস জে ইনোভেশনের প্রধান নির্বার্হী কর্মকর্তা শাহেদ ইসলাম, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন ও দিলীপ কুমার রায়।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত