বঙ্গবন্ধুর রাষ্ট্র গঠন ও দুর্নীতি নিধন দর্শন

ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীঃবাঙালী জাতিরাষ্ট্রের মহান স্থপতি বাঙালীর বঙ্গবন্ধু বিশ্ববন্ধু শেখ মুজিব। মহাকালের মহানায়ক ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী। রাজনীতির সূচনালগ্ন থেকেই দেশপ্রেমের আদর্শিক চেতনায় পরিপুষ্ট স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় জীবনের সকল সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য পরিহার করে নিরলস ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর হয়েছেন। দীর্ঘ স্বাধীনতা সংগ্রামের কঠিন কালপরিক্রমায় যে সত্যাগ্রহ, নি...

শেখ রাসেল: একটি স্বপ্নের মৃত্যু - প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন

সময়টা ছিল লড়াই আর যুদ্ধের উত্তেজনায় মুখর। ১৯৬৪ সাল। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে ঘটে চলেছে ঐতিসাহিক ও রাজনৈতিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা। ঐ সময় সমগ্র পাকিস্তান জুড়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ডামাডোল। একদিকে প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান, অন্যদিকে সম্মিলিত বিরোধীদলের প্রার্থী কায়দে আজম মুহম্মদ আলী জিন্নার বোন ফাতেমা জিন্নাহ। অনিশ্চয়তা আর অন্ধকারের মাঝেও এ অঞ্চলের মানুষ স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখছে। ...

আজ সব ফুল ফুটেছে শুধু তার জন্য - এম নজরুল ইসলাম

রূপকথার গল্প নয়, মায়াবি মুখের এক দেবশিশুর গল্প শোনাই। তার দুই চোখজুড়ে ছিল অপার বিস্ময়। ছিল অন্যকে আকর্ষণ করার ক্ষমতা। সহজাত সারল্য ছিল তার। মা-বাবার মমতা, ভাই-বোনের ভালবাসার ভেলায় ভেসে দিন যাচ্ছিল তার। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর লিখেছেন, ‘বয়স তখন ছিল কাঁচা, হাল্কা দেহখানা/ ছিল পাখির মতো, শুধু ছিল না তার ডানা।’ কাঁচা বয়সই ছিল তার। ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর সড়কের ...

অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের রূপকার বঙ্গবন্ধু

ড. আতিউর রহমানঃ এ দেশের কৃষক, শ্রমিক, নিম্ন-মধ্যবিত্ত ও উচ্চ-মধ্যবিত্তের জন্য বঙ্গবন্ধু ছিলেন অন্তঃপ্রাণ। তাই শোকের এ মাসে তারা ভাবেন, এ দেশটি আরও কত আগেই না অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের স্বাদ পেত, যদি বঙ্গবন্ধুকে হঠাৎ এমন করে চলে যেতে না হতো। যদিও তার সুকন্যা পরবর্তী পর্বে এসে গরিব-দুঃখীর দুঃখ মোচনের নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন, তবুও মাঝখানে অনেক বছর হারিয়ে গেছে জাতির জী...

বঙ্গবন্ধু – মানুষের মনিকোঠায়, বিনম্র শ্রদ্ধায়, অতল ভালবাসায়

আব্দুল হাই ছিল গোপালগঞ্জ টুঙ্গিপাড়ার শেখ সাহেরা খাতুন রেডক্রস হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়। প্রায় ৩৪ বছর পর বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার সাক্ষী দিতে গিয়ে এতোদিন বুকে চেপে থাকা লাশ দাফনের স্মৃতিকথা তুলে ধরেছিল আদালতে। তার বর্ননামতে জাতির পিতার দাফন সম্পাদন করতে ১৯৭৫ এর ১৬ আগস্টে দুই থেকে তিন হাজার মানুষ সমবেত হতে চেষ্টা করেছিল টুঙ্গিপাড়ার সেই বিষাদময় থমথমে পরিবেশে। কিন্তু সেনা...

বঙ্গবন্ধু ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ

মেজর জেনারেল এ কে মোহাম্মাদ আলী শিকদার পিএসসি (অব.): আজকের শিরোনামটি আমার নিজের নয়। গত সপ্তাহে সিরডাপ মিলনায়তনে এই শিরোনামে একটা বড় সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সেখানে আমিও উপস্থিত ছিলাম। সেই সূত্রেই আজকের লেখা। ২০২০ সালের ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষ...

বঙ্গবন্ধু-উত্তর প্রজন্মের ক্রীড়া অনুরাগ

ড. শেখ আবদুস সালামঃ গত ১৯ মে 'খেলোয়াড় বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গন' শিরোনামে সমকালে আমার একটি লেখা ছাপা হয়েছিল। সেই লেখায় বঙ্গবন্ধু পরিবারের দুই প্রজন্ম অর্থাৎ বঙ্গবন্ধুর পিতা এবং বঙ্গবন্ধুর নিজের ক্রীড়া কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার খানিকটা বিবরণ ছিল। ওই লেখায় উল্লেখ করেছিলাম, সেই ১৯৪০ সালে গোপালগঞ্জের অফিসার্স ক্লাবের সেক্রেটারি বাবা শেখ লুৎফর রহমান এবং মিশন...

বাঙালির মুক্তির সনদ ‘৬-দফা’

বাঙালি জাতি চির দুর্বার, চির দুর্মর। যুগে যুগে তারা অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার থেকেছে। শক্তিবলে অসম হলেও তারা ব্রিটিশদের সামনেও কভু মাথা নত করেনি। পাকিস্তানী শোষকগোষ্ঠীর দুঃশাসন,অত্যাচারে জর্জরিত বাঙালি দৃঢ়কন্ঠে অন্যায়ের প্রতিবাদ জানিয়েছে। ৫২’র হার না মানা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠা করেছে নিজেদের মাতৃভাষার অধিকার । ধীরে ধীরে দৃপ্ত পদক্ষেপে এগিয়ে গেছে স্বাধিক...

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ছয় দফার তাৎপর্য

ড. এম এ মাননানঃ বঙ্গবন্ধুর পদচারণা এ দেশের অনেক কিছুতেই। সমতলের মেঠোপথ, হাওর-বাঁওড়ের কূলঘেঁষা সবুজ গ্রাম, সাগরপাড়ের মৎস্যজীবী অঞ্চল, পাহাড়ের অরণ্যভূমি, নদী সিকস্তির নিম্নভূমি, শহরের অলিগলি, কোথায় ছিল না তার পদচারণা। সদর্প পদচারণা ছিল রাজনীতির সুবিশাল ময়দানে, অর্থনীতির পরতে পরতে, শিল্পাঞ্চলের মেহনতি মানুষের আঙিনায়। অনেক পদচারণার অন্যতম ছিল পাকিস্তানি সামরিক শ...

মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আজ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সম্মুখে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে এ মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর প্রধানমন্ত্রী স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা ...

স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে ৭ মার্চ

অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খানঃ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে অনেক আলোচনা পর্যালোচনা, বিশ্লেষণ হয়েছে। এর গুরুত্ব ব্যাখ্যা করা হয়েছে। কিন্তু এই ভাষণের পর তৎকালীন বাঙালি জাতির ওপর কী প্রভাব পড়েছে বা মানুষ কীভাবে দ্রুত স্বাধীনতা কিংবা মুক্তিযুদ্ধের দিকে এগিয়ে গেছে, সেটি খুব আলোচনা হয়নি। তা নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছানো জরুরি। ১৯৭১...

স্বাধীনতার ঘোষণাঃ বঙ্গবন্ধুর স্বকণ্ঠে

লড়াইয়ের জন্য জাতিকে পুরোপুরি প্রস্তুত করে যৌক্তিক সময়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেছিলেন অবিসংবাদিত নেতা শেখ মুজিবুর রহমান। পাকিস্তানী শাসন শোষণ থেকে বাঙালীকে মুক্ত করার ঐতিহাসিক ঘোষণার লিখিত রূপ এতকাল ধরে সামনে এসেছে। তবে সাম্প্রতিক গবেষণায় উঠে এসেছে একেবারেই নতুন তথ্য। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের ঠিক আগ মুহূর্তে জানা যাচ্ছে, স্বকণ্ঠে স্বাধীনতার ঘোষণা দি...

বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা

ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীঃ ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া নামক এক অজপাড়াগাঁয়ে যে শিশুটি জন্মগ্রহণ করেছিলেন, কালের পরিক্রমায় তিনি হয়ে উঠেছেন বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা; হাজার বছরের ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ বাঙালি; স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশের স্থপতি; বাঙালির একমাত্র মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেই মহান ব্যক্তি এখন শুধু বাঙালির বঙ্গবন্ধু নন, বি...

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রঃ মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রতিটি সেক্টরের মুক্তিযোদ্ধারা যেভাবে অস্ত্র নিয়ে যুদ্ধ করেছেন তেমনিভাবেই স্বাধীন বাংলা বেতারের একটি কেন্দ্র একটি সেক্টর হিসেবে কাজ করেছে। উদ্দীপনামূলক দেশাত্মবোধক গান, রম্য নাটক, বজ্রকণ্ঠ (বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের অংশ বিশেষ), কথিকা, চরমপত্র, পুঁথিপাঠসহ সব কিছুই তখন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে প্রচারিত হতো। এই স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্...

গণহত্যার দিকে এগিয়ে গেল শ্বাপদরাঃ শান্তা মারিয়া

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ বাংলার বুকে যে গণহত্যা হয়েছিল, তা বিশ্ব ইতিহাসে নজিরবিহীন। তখনো তো বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষিত হয়নি। তার আগে পর্যন্ত বলা চলে পশ্চিম ও পূর্ব পাকিস্তান একই দেশ ছিল। সেই হিসেবে নিজ দেশের বেসামরিক ঘুমন্ত নগরবাসীর ওপর সেনাবাহিনীর এভাবে নির্বিচারে এত ব্যাপক গণহত্যা চালানোর নজির আর কোনো দেশে নেই। ইয়াহিয়া ও পশ্চিম পাকিস্তানি সামরিক জান্তা এবং জুলফিক...

২৫শে মার্চ, ‘গণহত্যা দিবস’, ইতিহাসের দায় মুক্তিঃ শিরীন আখতার

মুক্তিযুদ্ধ আমাদের অস্তিত্ব। এই একটি শব্দে জাতি খুঁজে পায় তার শেকড়ের সন্ধান। বাংলাদেশের ইতিহাস স্মরণ করতে গেলে হাজার বছরের স্বাধীনতার সংগ্রামের বিভিন্ন খণ্ডিত ইতিহাস আমাদের কাছে স্মরণযোগ্য। এই সব কিছু ছাপিয়ে ’৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ মূর্ত করেছে আমাদের প্রকৃত স্বাধীনতা। আর এই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস গড়ে উঠেছে আমাদের ভাষার অধিকার ও স্বাধীন স্বায়ত্বশাসনের আন্দোলন থেকে...

২৫ মার্চ ১৯৭১, একটি গণহত্যার রাতঃ রেজুয়ান আহমেদ শুভ্র

মহাকালের স্বাভাবিকতায় প্রতিবছরের ন্যায় আবারো ফিরে এসেছে পৃথিবীর ইতিহাসের জঘন্যতম গণহত্যার স্মৃতিবিজড়িত রাত ভয়াল ২৫ মার্চ। এই রাতের বীভৎসতা এতটাই নির্মম যে... মহাকালের স্বাভাবিকতায় প্রতিবছরের ন্যায় আবারো ফিরে এসেছে পৃথিবীর ইতিহাসের জঘন্যতম গণহত্যার স্মৃতিবিজড়িত রাত ভয়াল ২৫ মার্চ। এই রাতের বীভৎসতা এতটাই নির্মম যে হত্যা, ধর্ষণ, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগ, ধ্বংসযজ্ঞের অতী...

বঙ্গবন্ধু বললেন, ‘জনগণের জন্যই আমার জীবন ও মৃত্যু’

১৭ মার্চ ১৯৭১। দিনটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৫২তম জন্মদিন ছিল। এদিন ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্তরের মানুষ মিছিল করে বঙ্গবন্ধুর ধানমন্ডির ৩২ নম্বর রোডের বাসভবনে গিয়ে তাদের প্রাণপ্রিয় নেতাকে শুভেচ্ছা জানায়। বঙ্গবন্ধু ঘোষিত বাংলার অহিংস-অসহযোগ আন্দোলনের ষোড়শ দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সকাল ১০টায় প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খানের সাথে দ্বিতীয় দফা বৈঠকে...

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের উৎসব

সুভাষ সিংহ রায়ঃ ‘আমি আমার জন্মদিনের উৎসব পালন করি না। এই দুঃখিনী বাংলায় আমার জন্মদিনইবা কি আর মৃত্যুদিনইবা কি? আপনারা বাংলাদেশের অবস্থা জানেন। এদেশের জনগণের কাছে জন্মের আজ নেই কোন মহিমা। যখনই কারও ইচ্ছা হলো আমাদের প্রাণ দিতে হয়। বাংলাদেশের জনগণের জীবনের কোন নিরাপত্তাই তারা রাখেনি। জনগণ আজ মৃতপ্রায়। আমার আবার জন্মদিন কি? আমার জীবন নিবেদিত আমার জনগণে...

সারাদেশে উদযাপিত বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে ১৭ মার্চ রোববার স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মদিন উদযাপিত হয়েছে। একই সঙ্গে দিনটিকে দেশব্যাপী ‘জাতীয় শিশু দিবস’ হিসেবে উদযাপন করা হয়।বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে রোববার ভোরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের দিনব্যাপী কর্মসূচি শুরু হয়। ...

  • «
  • »