এক বছরে বেড়েছে আওয়ামী লীগের জনসমর্থনঃ আইআরআই জরিপ

1035

Published on জানুয়ারি 15, 2020
  • Details Image

গত এক বছরে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের প্রতি জনসমর্থন বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে বিরোধী দলের জনপ্রিয়তা। এছাড়া বাংলাদেশের মানুষ বর্তমান সরকারের সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই)।

সম্প্রতি আইআরআই পরিচালিত এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। শেখ হাসিনার সরকারের বছর পূর্তিতে সংস্থাটি এ জনমত জরিপ করে। এই জরিপের ফলাফল তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে।

রেডস্টোন সাইন্টিফিকের তত্ত্বাবধানে ২০১৯ সালের ১ অগাস্ট থেকে ১৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই জরিপ পরিচালনা করে আইআরআই। যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান পার্টির নেতা জন ম্যাককেইনের নেতৃত্বে জরিপটি পরিচালিত হয়। বাংলাদেশের ৮ বিভাগের ৬৪ জেলায় ‘মাল্টি স্টেজ স্টার্টিফাইড প্রবাবলিটি’ নমুনায়নের মাধ্যমে ব্যক্তি পর্যায়ে যোগাযোগ করে এই জরিপ চালানো হয়।

জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, সরকারের প্রতি সমর্থন এক বছরে অনেক বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে বিরোধী দলের জনপ্রিয়তা। তবে সরকারের জনপ্রিয়তা বাড়লেও বাংলাদেশের মানুষ এখন দুর্নীতি ও বৈষম্য নিয়ে উদ্বেগে রয়েছে।

এদিকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের আগ মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ আগামীর পথে নিয়ে যাওয়ার জন্য অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন।

২০০৮ সাল থেকে টানা তৃতীয় মেয়াদে দেশ পরিচালনা করছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকার। সর্বশেষ ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে পশ্চিমা দেশগুলো প্রশ্ন তোলে। তবে তার কোনো প্রভাব দেখা যায়নি আইআরআই জরিপে।

এক বছর আগে চালানো আরেকটি জরিপের সঙ্গে তুলনা করে সংস্থাটি বলছে, সরকারের প্রতি জনসমর্থন ১৯ শতাংশ পয়েন্ট বেড়েছে। এখন দেশের ৮৩ শতাংশ মানুষের সরকারের প্রতি সমর্থন রয়েছে। এছাড়া আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে দেশ সঠিক পথে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মত দিয়েছেন জরিপে অংশগ্রহণকারী ৭৬ শতাংশ মানুষ। ২০১৮ সালের জরিপে এই অঙ্ক ছিল ৬২ শতাংশ। অন্যদিকে জরিপে অংশগ্রহণকারী ৩৬ ভাগ মানুষ বিরোধী দলের কাজে সমর্থনের কথা জানিয়েছে; যা ২০১৮ সালে ছিল ৪২ শতাংশ।

জরিপে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কিছু খাতে জনসমর্থন বাড়ার বিষয়টি উঠে এসেছে। এর মধ্যে শিক্ষা ক্ষেত্রে নেওয়া পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়েছে ৯০ শতাংশ নাগরিক। এছাড়া বিদ্যুৎ ও জ্বালানি উন্নয়ন কার্যক্রমে ৮৬ শতাংশ এবং যোগাযোগ অবকাঠামো উন্নয়নে ৮১ শতাংশ মানুষ সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও বিশুদ্ধ পানি সরবরাহে ৭৭ শতাংশ, সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় ৭৬ শতাংশ, স্বাস্থ্য খাতে ৭৪ শতাংশ এবং শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার ক্ষেত্র ৭১ শতাংশ সরকারের কার্যক্রমকে সমর্থন জানান।

জরিপে অংশগ্রহণকারী বেশিরভাগ মানুষই দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অবস্থা এবং নিরাপত্তা নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। অর্থনৈতিক উন্নয়নে সন্তুষ্ট দেশের ৭৬ শতাংশ মানুষ। এছাড়া রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ভালো বলে মত দিয়েছেন ৫৯ শতাংশ নাগরিক, যা এক বছর আগে ছিল ৪৮ শতাংশ। পাশাপাশি নিরাপত্তা নিয়ে সন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন ৭২ শতাংশ নাগরিক।

এদিকে সরকারের প্রতি সমর্থন বাড়লেও দুর্নীতি এই সময় বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে আইআরআইর জরিপে।

জরিপে অংশগ্রহণকারী ৭৬ শতাংশ নাগরিক মনে করেন বৈষম্য ক্রমেই বাড়ছে। আর ৩১ শতাংশ জানিয়েছেন, দুর্নীতির নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে তাদের জীবনে। এছাড়া ১৯ শতাংশ মানুষ দুর্নীতিকেই বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

আয় বৈষম্যকে দুশ্চিন্তার বড় কারণ হিসেবে দেখছেন ৬১ ভাগ মানুষ। আর ১৭ শতাংশ নাগরিক মাদকদ্রব্যকে বড় হুমকি ধরনের হুমকি মনে করছেন। এছাড়াও বেকারত্ব নিয়ে সংশয়ের কথা জানিয়েছেন ১০ শতাংশ মানুষ।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত