মিথ্যাচারের নোংরা রাজনীতি পরিহার করুনঃ বিএনপিকে ড. হাছান মাহমুদ এমপি

বিএনপিকে মিথ্যাচারের নোংরা রাজনীতি পরিহার করার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি।

রবিবার (২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপি নেত্রীর গাড়ি বহরে সাংবাদিকদের গাড়িতে হামলার ঘটনায় বিএনপির মিথ্যাচারের প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, "পরিকল্পিত ভাবে একটা সংবাদ সৃষ্টি করার জন্য বিএনপিই খালেদা জিয়ার নির্দেশে গাড়িবহরে সাংবাদিকদের গাড়িতে এই হামলা করেছে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার বক্তব্যের মাধ্যমে প্রমানিত হয় এটা তাদের পরিকল্পিত হামলা। বহরে হামলার ঘটনায় একজন বিএনপি নেতার গাড়িও ক্ষয়খতি বা কোন নেতার গায়ে আঁচড়ও লাগে নি, এটা আসলেই রহস্যজনক।

এ সময় রোহিঙ্গাদের ত্রান দেওয়ার নাম করে নিজ দলের নেতাকর্মীদের দিয়ে গাড়ি বহরে সাংবাদিকদের গাড়িতে হামলা করে আওয়ামী লীগের উপর দোষ চাপানোর জন্য দলের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা জানান ড. হাছান মাহমুদ |

বিএনপিকে প্রশ্ন রেখে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সাংবাদিকদের গাড়িতেই কেন হামলা করা হলো? বেগম জিয়া কি কারণে যানজট সৃস্টি করে পরিক্ষার্থীদের অসুবিধা করে সড়ক পথে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার গেলেন? কেনইবা খালেদা জিয়ার নিজের এলাকায় তাদের গাড়িবহরে হামলা হলো? কি কারণে অসুস্থাতার কথা বলেও এতো দূরের পথে তিনি সড়কপথে কেনো গেলেন? আর গাড়িবহরে কেন কোন ত্রাণ ছিলো না।

তিনি আরও বলেন, কি কারণে দেশে আসার প্রায় দশ দিন পর রোহিঙ্গা শরনার্থী শিবিরে গেলেন, আগে কেন আসলেন না।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের দলের সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুল কাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে খালেদা জিয়া বিরোধি দলীয় নেত্রী বা এমপি না হওয়া সত্বেও তার নিরাপত্তা ও থাকার জন্য সকল সরকারি সুযোগ সুবিধাদি নিশ্চিত করেছিলেন। কিন্তু বিএনপি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় তৎকালিন বিরোধি দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনাকে সফরের সময় চট্টগ্রাম এবং বরিশালের মত জায়গায় সার্কিট হাউজে থাকার অনুমতি দেয় নি এবং বিভিন্ন সময় সফরে দফায় দফায় হামলা করেছিল।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামিম, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

TOP