১৬ জেলায় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসঃ একনেকে অনুমোদন

6115

Published on জুলাই 3, 2018
  • Details Image

দেশের ১৬ জেলায় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস ভবন নির্মাণসহ ৮ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)।

এগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ৬ হাজার ৪৯৩ কোটি ৮ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৩ হাজার ২৭৯ কোটি ২২ লাখ, বাস্তবায়নকারী সংস্থার নিজস্ব তহবিলের ১৭৯ কোটি ৯৮ লাখ এবং বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৩ হাজার ৩৩ কোটি ৮৮ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। এতে সভাতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এ সময় পরিকল্পনা সচিব মো. জিয়াউল ইসলাম, আইএমইডির সচিব মো. মফিজুল ইসলাম, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, পরিকল্পনা কমিশনের ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য জুয়েনা আজিজ এবং শিল্প ও শক্তি বিভাগের সদস্য শামীমা নার্গিস উপস্থিত ছিলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, ১০০ বছরের জন্য চূড়ান্ত হতে যাওয়া ডেল্টা প্ল্যানে জনগণকে সম্পৃক্ত করার তাগিদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, এ পরিকল্পনা জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তাই জনগণকে সঙ্গে নিয়েই এটি বাস্তবায়ন করতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, পাসপোর্ট সবারই প্রয়োজন। আমরা চাই এ সেবা যাতে মানুষ নিজ জেলা থেকেই নিতে পারেন। এজন্য ঢাকা কিংবা চট্টগ্রামে আসতে হবে না। সেই বিবেচনায় ১৬ জেলায় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস ভবন নির্মাণ প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

একনেকে অনুমোদিত প্রকল্পগুলো হচ্ছে- ১৬টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস নির্মাণ প্রকল্প, বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ৮৭ কোটি টাকা। পদ্মা (যশোলদিয়া) পানি শোধনাগার নির্মাণ, ব্যয় হবে ৩ হাজার ৬৭০ কোটি টাকা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতায় কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ, ব্যয় হবে ২৬৮ কোটি ৭৬ লাখ টাকা।

ঢাকার গুলশানে ভূগর্ভস্থ গ্রিড উপকেন্দ্র নির্মাণ, ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৫০ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। মোল্লাহাট ১০০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ, ব্যয় হবে ৮২ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

শেখ হাসিনা স্পেশালাইজড জুট টেক্সটাইল মিল প্রকল্প, ব্যয় হবে ৫১৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। ইন্সটিটিউট অব নিউক্লিয়ার মেডিসিন অ্যান্ড এ্যালায়েড সায়েন্সেস (ইনমাস) ময়মনসিংহ ও চট্টগ্রামে সাইক্লোন ও পেস-সিটি এবং ইন্সটিটিউট অব নিউক্লিয়ার মেডিকেল ফিজিক্স (আইএনএমপি), সাভারে সাইক্লোট্রন সুবিধাদি স্থাপন, ব্যয় ধরা হয়েছে ৬৭৩ কোটি টাকা এবং সোনাইমুড়ী-সেনবাগ-কল্যান্দী-চন্দেরহাট-বসুরহাট সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প, এটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ২৪১ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

Live TV

আপনার জন্য প্রস্তাবিত